Terms and Conditions

ঋণ কার্যক্রম

ঋণ কী?

এই নেটওয়ার্কে ঋণ বলতে জমার অতিরিক্ত উত্তোলনকে বুঝানো হয়। যদি কোন সদস্যের অধীনে কমপক্ষে ০৫(পাঁচ) জন সক্রিয় রেফারাল সদস্য থাকে তাহলে তিনি তার হিসাবে জমানো টাকার অতিরিক্ত বাংলাদেশী টাকার ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ৫০,০০০/-(পঞ্চাশ হাজার) টাকা এবং বৈদেশিক মুদ্রার ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ৫০০ ইউএস ডলার পর্যন্ত উত্তোলন করতে পারবেন। তবে অতিরিক্ত উত্তোলনের পরিমাণ কোন ভাবেই সংশ্লিষ্ট সদস্যের অধীনে সকল রেফারাল সদস্য কর্তৃক সঞ্চিত মোট আমানতের ৫০% এর বেশী হবে না। সঞ্চয়ের অতিরিক্ত উত্তোলিত অর্থ ঋণ হিসেবে গণ্য হবে এবং উক্ত অর্থের উপর স্বয়ংক্রিয়ভাবে মাসিক ভিত্তিতে সার্ভিস চার্জ যুক্ত হবে।

সার্ভিস চার্জ কী?

কোন সদস্য সঞ্চিত আমানতের অতিরিক্ত উত্তোলন করলে অতিরিক্ত উত্তোলিত অর্থ সমন্বয় না হওয়া পর্যন্ত অতিরিক্ত উত্তোলিত মোট অর্থের উপর মাসিক ২% হারে চার্জ যুক্ত হবে যা সার্ভিস চার্জ হিসেবে গণ্য হবে। উদাহরণস্বরূপ যদি কোন সদস্যের অধীনে ১০(দশ) জন রেফারল সদস্য থাকে এবং প্রত্যেক সদস্য বাংলাদেশী টাকার ক্ষেত্রে ১০,০০০/-(দশ হাজার) টকা এবং বৈদেশিক মুদ্রার ক্ষেত্রে ১০০ ইউএস ডলার সঞ্চয় জমা করে থাকেন তাহলে সংশ্লিষ্ট সদস্য তার জমার অতিরিক্ত (১০০০০*১০*৫০%)=৫০,০০০/-(পঞ্চাশ হাজার) টাকা বা (১০০*১০*৫০%)=৫০০ ইউএস ডলার উত্তোলন করতে পারবেন এবং এই অতিরিক্ত উত্তোলিত অর্থ সম্বয় না হওয়া পর্যন্ত মোট অতিরিক্ত উত্তোলিত অর্থের উপর মাসিক ২% হারে সার্ভিস চার্জ যুক্ত হবে।

মর্টগেজ কী?

কোন সদস্য জমার অতিরিক্ত অর্থ উত্তোলন করলে সংশ্লিষ্ট সদস্যের অধিনস্ত রেফারালগণের হিসাব সমূহ তার গৃহীত ঋণের জামানত হিসেবে বিবেচিত হবে এবং সংশ্লিষ্ট হিসাবগুলো স্বয়ংক্রিয়ভাবে মর্টগেজ তালিকাভূক্ত হবে। তবে মর্টগেজ তালিকাভূক্ত হলেও উক্ত সদস্য নিজেও জমার অতিরিক্ত অর্থ উত্তোলন করতে পারবেন যদি তার অধীনে কমপক্ষে ০৫(পাঁচ) জন সক্রিয় রেফারাল সদস্য থাকে।

রেফারালগণের সম্মতি:

কোন সদস্য তার অধিনস্ত রেফারালগণের হিসাব মর্টগেজ রেখে জমার অতিরিক্ত অর্থ উত্তোলন করতে চাইলে অবশ্যই রেফারালগণের নিকট থেকে সম্মতি নিতে হবে। এজন্য সংশ্লিষ্ট সদস্য ফোনে কিংবা সরাসরি যোগাযোগ করে তার অধিনস্ত সকল রেফারাল সদস্যগণকে তার/তাদের হিসাবটি মর্টগেজ রাখার ব্যাপারে সম্মতিদানের জন্য অনুরোধ জানাবেন। যদি সকল কিংবা কমপক্ষে ০৫(পাঁচ) জন সক্রিয় রেফারাল সদস্য তার/তাদের হিসাবগুলো মর্টগেজ রাখার ব্যাপারে সম্মতি প্রদান করেন তাহলে সংশ্লিষ্ট সদস্য ঋণ হিসেবে জমার অতিরিক্ত অর্থ উত্তোলনের সুযোগ পাবেন। যেসকল রেফারাল সদস্য তার/তাদের হিসাব মর্টগেজদানে সম্মত হবেন তাদের প্রত্যেককেই আলাদাভাবে সাপোর্ট টিকেট খুলে কিংবা ইমেইলের মাধ্যমে তার/তাদের সম্মতির বিষয়টি অত্র নেটওয়ার্ক টিমকে অবহিত করতে হবে।

ঋণ প্রাপ্তি:

রেফারাল সদস্যগণ সম্মতি প্রদানের পর সংশ্লিষ্ট সদস্য কত টাকা ঋণ নিতে চান তার পরিমাণ উল্লেখ করে সাপোর্ট টিকেটের মাধ্যমে আবেদন করতে হবে। যদি চাহিত ঋণের পরিমাণ রেফারাল সদস্যগণ কতৃক সঞ্চিত মোট আমানতের ৫০% এর বেশী না হয় তাহলে অনুর্দ্ধ ২৪ ঘন্টার মধ্যে ঋণ মঞ্জুর করে সাপোর্ট টিকেটের মাধ্যমে ঋণ মঞ্জুরীর বিষয়টি অবহিত করা হবে। যদি চাহিত ঋণের পরিমাণ রেফারাল সদস্যগণ কতৃক সঞ্চিত মোট আমানতের ৫০% এর বেশী হয় তাহলে তিনি কত টাকা ঋণ নিতে পারবেন তা সাপোর্ট টিকেটের মাধ্যমে অবহিত করা হবে এবং সংশ্লিষ্ট সদস্য উক্ত পরিমাণ টাকা ঋণ নিতে সম্মতি জানানোর পরবর্তী ২৪ ঘন্টার মধ্যে ঋণ মঞ্জুর করে সাপোর্ট টিকেটের মাধ্যমে ঋণ মঞ্জুরীর বিষয়টি অবহিত করা হবে। কোন সদস্য নীতিমালা লঙ্ঘন করে ঋণের আবেদন করলে উক্ত আবেদন সরাসরি বাতিল বলে গণ্য করা হবে।



ধাপ-১: আপনার অধিনস্ত রেফারাল সদস্যদের সাথে যোগাযোগ করে জেনে নিন, আপনার ঋণের বিপরীতে তারা তাদের হিসাবটি মর্টগেজ রাখাতে রাজী কি না? পাশাপাশি তাদের প্রত্যেকের হিসাবে কত টাকা জমা আছে সেটাও জেনে নিন।

ধাপ-২: আপনার একাউন্টে লগইন করুন।

ধাপ-৩: বটম মেনু থেকে (ওয়েবসাইটের একদম নিচের মেনু) “Get Support” এ ক্লিক করুন, নিচের পেজটি প্রদর্শিত হবে।


ধাপ-৪: Create a new ticket ট্যাব করুন (লাল চিহ্নিত স্থানে), নিচের বক্সটি প্রদর্শিত হবে।


ধাপ-৫: Department: এর ডান পাশে ক্লিক করে Loan Support নির্বাচন করুন। Subject এর ঘরে লিখুন “Application for a loan” এবং নিচের বড় বক্সটিতে আপনার রেফারাল সংখ্যা, রেফারালগণের জমার পরিমাণ এবং আপনি কত টাকা ঋণ নিতে চান তা লিখে Send বাটন চাপুন।

মঞ্জুরীকৃত ঋণের টাকা উত্তোলন:

আপনার আবেদন প্রক্রিয়া সঠিক থাকলে অনুর্দ্ধ ২৪ ঘন্টার মধ্যে ঋণ মঞ্জুর করে সাপোর্ট টিকেটের মাধ্যমে ঋণ মঞ্জুরীর বিষয়টি অবহিত করা হবে এবং মঞ্জুরীকৃত ঋণের টাকা আপনার মূল একাউন্টে যুক্ত হয়ে যাবে। অতঃপর আপনি একাউন্টে লগইন করে স্বাভাবিক নিয়মে টাকা উইথড্রো/উত্তোলন করতে পারবেন। টাকা উত্তোলন করার জন্য একাউন্টে লগইন করে উইথড্র কমান্ড দিতে হবে। উইথড্র দেয়ার সময় যে গেটওয়ে (বিকাশ/রকেট/নগদ) নির্বাচন করবেন সেই গেটওয়ের মাধ্যমে অনুর্দ্ধ ২৪ ঘন্টার মধ্যে টাকা পৌঁছে যাবে। উল্লেখ্য, প্রথমবার উইথড্র দেয়ার পূর্বে অবশ্যই সংশ্লিষ্ট সদস্যকে তার একাউন্টে লগইন করে Personal Settings এ গিয়ে বিকাশ/রকেট/নগদ নম্বর যুক্ত করতে হবে।

নিচে Personal Setting উইন্ডো এর চিত্র দেখানো হলো। Payment Method এর ডান পাশে লাল বৃত্তে দেখানো স্থানে বিকাশ/রকেট/নগদ নম্বর যোগ করে পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করার প্রয়োজন না হলে লগইন করার সময় যে পাসওয়ার্ড ব্যবহৃত হয় উক্ত পাসওয়ার্ডটি নিচের লাল বৃত্তে দেখানো স্থানে বসিয়ে Send বাটন চাপতে হবে।


ঋণ সমন্বয়:

ঋণ পরিশোধ করার জন্য সর্বোচ্চ ৩৬৫ দিন সময় দেয়া হবে। তবে ঋণ নেয়ার পর দ্রুত ঋণ পরিশোধের লক্ষ্যে বেশী বেশী সঞ্চয় জমা করে স্বেচ্ছায় ঋণ পরিশোধের ব্যবস্থা না নিলে সার্ভিস চার্জ এর পরিমাণ বেড়ে যাবে। কোন সদস্য ইচ্ছাকৃতভাবে ঋণ পরিশোধে টালবাহানা করলে অর্থাৎ ৩৬৫ দিনের মধ্যে স্বেচ্ছায় অতিরিক্ত উত্তোলিত অর্থ পরিশোধ না করলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে তা মর্টগেজভূক্ত হিসাব থেকে সমন্বয় হয়ে যাবে। এজন্য সময়মত ঋণ পরিশোধে তৎপর থাকা প্রত্যেক সদস্যের জন্য অবশ্য কর্তব্য। মনে রাখতে হবে বিশ্বাসই এই নেটওয়ার্কের মূল ভিত্তি; যারা বিশ্বাসের অমর্যাদা করবে এই নেটওয়ার্কে তারা অভিশপ্ত বলে বিবেচিত হবে।

ফোরাম পোস্ট:

কোন সদস্য তার সঞ্চিত অর্থ কিংবা ঋণ হিসেবে জমার অতিরিক্ত অর্থ উত্তোলন করলে উত্তোলিত টাকা হাতে পাওয়া মাত্রই উত্তোলনের পরিমাণ/মঞ্জুরীকৃত ঋণের পরিমাণ উল্লেখ করে স্বীকৃতি ঘোষণা অবশ্যই ফোরামে পোস্ট করতে হবে।

Featured Ads

বাংলাদেশ সমবায় নেটওয়ার্ক

সঞ্চয় জমাদানের জন্য নিচের যেকোন একটি গেটওয়ে ব্যবহার করা যাবে।